কিস্তিতে রানার মোটরসাইকেল দাম ২০২৪

প্রিয় পাঠক বিন্দু আসসালামু আলাইকুম আপনাদের মধ্যে অনেকে জানতে চেয়েছেন কিস্তিতে রানার মোটরসাইকেল দাম সম্পর্কে। আজকে আমি এই আর্টিকেলটির মাধ্যমে রানার বাইকের সকল দাম গুলো আপনাদেরকে বলে দেবো । এবং রানার মোটরসাইকেল দাম ২০২৪ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরব।

সেই সাথে কিস্তিতে রানার মোটরসাইকেল দাম কেমন হবে কোথা থেকে নিতে পারবেন সবকিছু জানিয়ে দেব। আপনি যদি কিস্তিতে রানার মোটরসাইকেল দাম জানতে চান তাহলে অবশ্যই এই আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে সম্পন্ন পড়ুন। তাহলে চলুন আর দেরি না করে শুরু করা যাক।

মূল আলোচণাঃ কিস্তিতে রানার মোটরসাইকেল দাম

রানার মোটরবাইক

আমাদের অনেকেরই স্বপ্ন থাকে রানার মোটরবাইক না আর। কেননা রানার মোটরবাইক মানের দিক দিয়ে খুবই ভালো। রানারের ৮০ সিসি বাইক গুলো ১ লিটার পেট্রোল তেলে প্রায় 70 কিলোমিটার পর্যন্ত চলে যায়। আমাদের বাংলাদেশের বিভিন্ন লোকজন চাকরির ক্ষেত্রে বিশেষ করে এনজিওর চাকরির জন্য এই ধরনের মোটরসাইকেলগুলো ব্যাপকভাবে চাহিদা করে নিয়ে থাকে।

কেননা তাদের পায়ে হঠাতে এ ধরনের নানার মোটর বাইক নিয়ে চলাফেরা করা খুবই সুবিধাজনক। আমি আপনাদেরকে রানার মোটরবাইক সম্পর্কে শুধুমাত্র ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করলাম আরো বিস্তারিত তথ্য এখন তুলে ধরবো তাহলে চলুন পরবর্তী ধাপে যাওয়া যায়।

runner bike কিস্তি

কিন্তু আপনাদের মধ্যে অনেকেই আপনারা runner bike কিস্তি লিখে গুগলে সার্চ করে থাকেন। এর মানে আপনারা runner bike কিস্তিতে কিনতে চান। আমাদের বাংলাদেশের একটি অতি দরিদ্র দেশ এবং এখানে দিন দিন অর্থ সংকট বেড়েই চলেছে। কিন্তু আমাদের বাঙালির মানুষটা স্বপ্ন দেখতে খুবই বাক্য টু তার জন্য অনেকেরই স্বপ্ন থাকে একটি সুন্দর বাইক কিনা কিন্তু টাকার অভাবে অনেকে কিনতে পারেন না।

আরো পড়ুনঃ ডাবল গ্যাসের চুলার দাম বাংলাদেশ ২০২৪

তাই বাধ্য হয়ে runner bike কিস্তিতে কিস্তিতে কেনার জন্য বিভিন্ন রকম ওয়েব সাইট ইউটিউব ঘাটাঘাটি করেন। যে কিভাবে সহজে runner bike কিস্তি দিয়ে কেনা যায় আর নিজের স্বপ্ন পূরণ করা যায়। এটি এখন সহজ ব্যাপার আপনি চাইলেই খুব সহজে runner bike কিস্তিতে কিনতে পারবেন।

কিভাবে আপনি কিস্তিতে রানার মোটরসাইকেল কিনবেন সেই সম্পর্কে আমি বিস্তারিত প্রতিদান তথ্য একটু পরে তুলে ধরব। তাই অবশ্যই আমার এই লেখাটি মনোযোগ দিয়ে সম্পন্ন পড়ুন। কারণ আজকে আমি এই লেখাটি সাজিয়েছি কিস্তিতে রানার মোটরসাইকেল দাম সম্পর্কে।

রানার বাইক দাম

সারা পৃথিবীতে অসংখ্য রানার বাইক রয়েছে। আজকে আমরা রানার বাইক দাম সম্পর্কে জানবো এখন। অসংখ্য রানার বাইকের অসংখ্য রকম দাম রয়েছে। তাই চলুন একটা একটা করে সকল রানার বাইক দাম সম্পর্কে জেনে নিই। আপনি বর্তমানে রানার বাইক আরটি ৫৯ হাজার টাকার মধ্যে পেয়ে যাবেন।

এডি৮০এস এলয় রানার বাইক দাম মাত্র ৮৪০০০ হাজার টাকা। রানার ডিলাক্স v2 runner বাইক দাম ৮১৫০০ টাকা। রানার কিং রাইডার ভি2 এক লক্ষ ৪৬ হাজার টাকা দাম। রানার রয়েল v2 ১ লক্ষ ৮ হাজার টাকা দাম। রানার তোর ১ লক্ষ ২৯ হাজার টাকা দাম। রানার টুরবো 125 ১ লক্ষ ২৯হাজার টাকা দাম।

ইউ এম রানার রেনডজড স্পট রানার বাইক দাম এক ২,৫৫০০০ হাজার টাকা। আশা করি আপনি এখন রানার বাইক এর দাম সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। নানার বাইক সম্পর্কে আরো তথ্য জানবো সেই সাথে আমরা জানবো কিস্তিতে রানার মোটরসাইকেল দাম সম্পর্কে।

রানার ৮০ সিসি বাইক দাম

প্রিয় পাঠক বিন্দু আপনাদের মধ্যে অনেকে জানতে চান যে রানার ৮০ সিসি বাইক দাম কেমন হয়। তাহলে চলুন এখন আপনাদেরকে জানিয়ে দিন আনার একটি সিসি বাইক দাম সম্পর্কে। রানার ৮০ সিসি বাইক দাম শুরুর দিকে কম হলেও  বর্তমানে এটির দাম দিন দিন বেড়ে চলেছে। বর্তমানে ২০২৪ সালে এসে রানার ৮০ সিসি বাইক দাম ৮৫০০০ হাজার টাকা হয়ে গেছে। যদিও শুরুর দিকে রানার ৮০সিসি বাইক দাম ছিল ৬০ থেকে ৬৫ হাজার টাকার মধ্যে এমনকি খুব জোর ৭৫০০০ হাজার টাকা মাত্র।

রানার ইলেকট্রিক বাইক

প্রিয় পাঠক বিন্দু আপনাদের মধ্যে অনেকে রানার ইলেকট্রিক বাইক লিখে সার্চ করে থাকেন কেননা রানার এর ইলেকট্রিক বাইকগুলো খুবই দুর্দান্ত হয়ে থাকে এবং খুবই সুন্দর ও আকর্ষণীয় ধরনের বাইক। বিশেষ করে রানার ইলেকট্রিক বাইক মহিলাদের জন্য বেস্ট। কেননা এগুলো রানার বাইক ইলেকট্রিক হওয়ার ফলে ঝুঁকি কম থাকে এবং অনায়াসে কন্ট্রোলে রাখা যায়।

রানার মোটরসাইকেল দাম ২০২৪

প্রিয় পাঠক বিন্দু এখন আমরা জানবো রানার মোটরসাইকেল দাম ২০২৪ সম্পর্কে। ২০২৪ সালে অসংখ্য রানার মোটরসাইকেল বের হয়েছে যেগুলোর দাম ভিন্ন ভিন্ন রকম তাহলে চলুন এখন আমরা রানার মোটরসাইকেল দাম ২০২৪ জেনে নেব। ২০২৪ সালের রানার মোটরসাইকেলের সেরা আকর্ষণ হচ্ছে রানার বোল্ট ১৬৫R যেমন দুর্দান্ত পারফর্ম তেমন দেখতে লুকিং।

আরো পড়ুনঃ চার্জার ফ্যান প্রাইস ইন বাংলাদেশ ২০২৪

আর ২০২৪ সালের এ রানার মোটরসাইকেল এর দাম ১ লক্ষ ৭৪ হাজার টাকা। আরো একটি টপসেলিং রানার ইলেকট্রিক বাইক জানালার স্কুটি ১১০ নামে পরিচিত এই স্কুটির দাম ১ লক্ষ ৩৯ হাজার টাকা। এ ছাড়াও রয়েছে রানার কিং রাইডার্স এর রানার মোটরসাইকেল দাম ২০২৪ সালে ১ লক্ষ ৪২ হাজার টাকা মাত্র।

এরপরে আসে রানার কিং রাইডার ভি2 এর রানার মোটরসাইকেলটির দাম এক লক্ষ ৫৯ হাজার টাকা। এছাড়াও রয়েছে রানার টুর বা ১২৫ মাট এই মোটরসাইকেল দাম এক লক্ষ চব্বিশ হাজার টাকা মাত্র। এছাড়া আরও একটি লেডিস বাইক রয়েছে রানার কিট প্লাস যার নাম ১০৯০০০  টাকা মাত্র। রয়েছে রানার ইওয়াভা ইকো যার দাম মাত্র ১০৮০০০  টাকা।

আশা করি এতক্ষণে আপনারা রানার মোটরসাইকেল দাম ২০২৪ সম্পর্কে ভালোমতো জানতে পেরে গেছেন। তাহলে চলুন এখন আমরা মূল বিষয়ে চলে যাব কিস্তি তারা মোটরসাইকেল দাম কত সেই সম্পর্কে জানব।

কিস্তিতে রানার মোটরসাইকেল দাম

ভিডিও পাঠক বৃন্দ আপনাদের সে কাঙ্খিত লেখাটিতে এখন চলে এসেছেন রানার বাইক কিস্তিতে ২০২৪ কিস্তিতে রানার মোটরসাইকেল দাম কেমন হয় এবং কোথায় থেকে কিনবেন সেই সম্পর্কে এখন আলোচনা করব। তাহলে দেরি না করে চলুন শুরু করা যাক। কিস্তিতে রানার মোটরসাইকেলের দাম বিভিন্ন শোরুমে বিভিন্ন রকম হয়ে থাকে। এছাড়াও মোটরসাইকেলের মডেল অনুযায়ী ও বিভিন্ন মডেলের দাম কম বেশি হয়ে থাকে।

তবে আজকে আমি আপনাদেরকে সঠিক তথ্যটি জানিয়ে দেব যে কিস্তিতে রানার মোটরসাইকেল দাম কেমন হয়। কিস্তির মাধ্যমে আপনি রানার মোটরসাইকেলের রানার ডিলাক্স মোটরসাইকেল ৭৯০০০ থেকে ৮৫০০০ হাজার টাকা দাম। আর কিস্তির মাধ্যমে আপনি এই মোটরসাইকেলটি নিতে চাইলে অবশ্যই আপনাকে ৭০০০ থেকে ৮০০০ হাজার টাকা জমা দিতে হবে মাত্র। সেই সাথে ২৪ মাসের মধ্যেই আপনি সম্পূর্ণ টাকা পরিশোধ করার সুযোগ পাবেন ।

আরো পড়ুনঃ স্বর্ণের বর্তমান দাম ২০২৪ ২২ ক্যারেট কত জেনে নিন

আর বর্তমানে জনপ্রিয় মোটরসাইকেল তো হচ্ছে একটি রানার বোল্ড 165RG আপনি চাইলে কিস্তিতে রানারের এই মোটরসাইকেলটি নিতে পারবেন মাত্র ৩৫০০০ হাজার টাকা জমা দিয়ে। সেই সাথে তো ২৪ মাসে সম্পূর্ণ টাকা পরিষদের সুযোগ থাকবে। এছাড়া মেয়েদের জন্য পাবেন স্কুটি যা কিস্তিতে নিতে হলে ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকার মত পড়বে তাকে প্রথম দিকে মাত্র ৩০০০০ হাজার টাকা জমা দিলে পেয়ে যাবেন। আর বাদবাকি সম্পূর্ণ টাকা ২৪ মাসের মতো পরিশোধ করতে পারবেন।

আশা করি কিস্তিতে রানার মোটরসাইকেল দাম সম্পর্কে আপনি এখন ভালো মতো জানতে পেরে গেছেন। আপনি যদি আরো। কিস্তিতে মোটরসাইকেল নাম জানতে চান তাহলে অবশ্যই নিচে কমেন্ট করে জানাবেন। আরো অনেক সকল মোটরসাইকেল মডেলের নাম গুলো আমি আপনাকে জানিয়ে দেবো ইনশাল্লাহ। ভালো থাকবেন প্রিয় পাঠক বিন্দু আর অবশ্যই এই লেখাটি আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করবেন।

কিস্তিতে মোটরসাইকেল কেনার সুবিধা:

  1. প্রাথমিক বিনিয়োগ কম: একসাথে বড় অংকের টাকা না দিয়েই মোটরসাইকেল কেনা যায়।
  2. সহজ কিস্তি: মাসিক কিস্তির পরিমাণ আয়ের সাথে মানানসই করা যায়।
  3. দ্রুত ডেলিভারি: কিস্তি মঞ্জুরির পর দ্রুত মোটরসাইকেল ডেলিভারি পাওয়া যায়।
  4. সুবিধাজনক প্রক্রিয়া: আবেদন প্রক্রিয়া সহজ এবং দ্রুত।

কিস্তিতে রানার মোটরসাইকেল কেনার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র:

  1. জাতীয় পরিচয়পত্র (NID)
  2. পাসপোর্ট সাইজের ছবি
  3. চাকরির পরিচয়পত্র (চাকুরীজীবিদের জন্য)
  4. বেতন স্লিপ/বেতন বিবৃতি (চাকুরীজীবিদের জন্য)
  5. ট্রেড লাইসেন্স/টিন সার্টিফিকেট (ব্যবসায়ীদের জন্য)
  6. ব্যাংক স্টেটমেন্ট (ব্যবসায়ীদের জন্য)
  7. গ্যারান্টরের NID ও ছবি (প্রয়োজনে)

কিস্তির মেয়াদ ও পরিমাণ:

  1. কিস্তির মেয়াদ সাধারণত ১২ থেকে ৩৬ মাস পর্যন্ত।
  2. কিছু ক্ষেত্রে ৪৮ মাস পর্যন্ত কিস্তি পাওয়া যায়।
  3. মোটরসাইকেলের দাম ও কিস্তির মেয়াদের উপর নির্ভর করে মাসিক কিস্তির পরিমাণ।

সুদের হার:

  • সুদের হার প্রতিষ্ঠান ভেদে ভিন্ন হয়।
  • সাধারণত ১২% থেকে ১৮% পর্যন্ত।

কিস্তি মিস করলে:

  • কিস্তি বন্ধ হয়ে যেতে পারে।
  • বিলম্ব ফি দিতে হতে পারে।
  • আইনি জটিলতা হতে পারে।

Assalamu Alaikum! Hello world, I am Md. Hafijul Islam (mhihafijul). I am a Bangladeshi SEO expert. And I have been writing high quality Bengali content for a long time. I can write very nice SEO friendly articles. Along with that we do onpage seo, offpage seo and technical seo in proper guidelines. For which every article I write ranks on Google's fast page.

Sharing Is Caring:

Leave a Comment

error: Content is protected !!