ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামের যোগ্যতা কি কি জেনে নিন – facebook bonus program

আপনাদের মধ্যে হয়তো এখনো অনেকে জানেন না যে ফেসবুক মনোজ প্রোগ্রাম কি এবং এটি কিভাবে কাজ করে থাকে। আজকে আমি ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামের যোগ্যতা কি কি রয়েছে সেই সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব এই আর্টিকেলটির মাধ্যমে। আপনি যদি আমার ওয়েবসাইটে নতুন ভিজিটর হয়ে থাকেন তাহলে বলবো অবশ্যই আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন এটা আপনার উপকার হবে।

ফেসবুক বোনাস program হচ্ছে facebook থেকে টাকা ইনকাম এর একটি সহজ মাধ্যম। আপনি এই ফেসবুক বোনাস program ব্যবহার করে খুব সহজেই টাকা ইনকাম করতে পারেন। তাহলে চলুন এবার ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামের যোগ্যতা কি কি জেনে নিন।

পোস্ট সূচিপত্রঃ ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামের যোগ্যতা কি কি জেনে নিন

  • ভূমিকা
  • ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রাম
  • ফেইসবুক প্রোগ্রাম বোনাস
  • ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামের যোগ্যতা
  • www.facebook.com ক্রিয়েটর প্রোগ্রাম বোনাস
  • Facebook Reels বোনাস প্রোগ্রাম প্রযোজ্য
  • ফেসবুক রিলস বোনাস প্রোগ্রাম
  • ফেসবুক বোনাস কিভাবে আয় করব
  • নির্মাতাদের জন্য বোনাস প্রোগ্রাম মেটা
  • লেখকের শেষ কথা

ভূমিকা

ফেসবুক বোনাস program চালু করার পর থেকে বোনাস প্রোগ্রামে সবাই মেতে উঠেছে। কেননা এখন ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রাম খুব সহজে বেশি টাকা ইনকাম করার সহজ হয়েছে। তবে এই ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামটি শুধুমাত্র ভারত কিংবা যুক্তরাষ্ট্র এনাবল রয়েছে বা সক্রিয় রয়েছে। আপনি যদি ভারত থেকে ফেসবুকে অ্যাকাউন্ট খুলে বোনাস program চালু করেন তাহলে শুধু মাত্র এ বোনাস program হবে। চালু করতে পারবেন। তাছাড়া আপনার আইপি যদি বাংলাদেশের হয়ে থাকে কিংবা আরো অন্যান্য ছোট ছোট দেশগুলোর হয়ে থাকে তাহলে আপনি এই বোনাস program ফেসবুক প্রোগ্রাম বোনাস একই সেটা চালু করতে পারবেন না।

কেননা এটি তাদের নীতিমালার বাহিরে। আপনি যদি এখনো ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামের নীতিমালা না জেনে থাকেন তাহলে অবশ্যই ফেসবুকের অফিসিয়াল পেজ থেকে জেনে নিবেন। আজকে আমি শুধু মাত্র ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামের যোগ্যতা কি কি আছে সেগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরব। তাই অবশ্যই একটু সময় নিয়ে আমার এই আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন।

ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রাম

এখন আমি ফেসবুক বোনাস program সম্পর্কে সঠিক তথ্য গুলো তুলে ধরব। ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামের মাধ্যমে যোগদান করে আপনি খুব সহজেই ভিডিও তৈরি করে কিংবা বিভিন্ন ধরনের আকর্ষক বিষয়বস্তু তৈরি করে উপার্জন করতে পারেন। এছাড়াও ভিডিও এবং লাইফস্টিম তৈরি করার মাধ্যমেও আপনি ফেসবুক থেকে বোনাস পেতে পারেন। এছাড়াও এই ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামের অর্থ প্রদানের আরো অনেক বিষয় বস্তু রয়েছে।

ফেসবুক বোনাস program facebook কর্তৃপক্ষ আপনাকে এমনি এমনি দিবে না। এর জন্য ফেসবুক কর্তৃপক্ষের বেশ কিছু নির্দেশনা দেওয়া আছে অর্থাৎ নীতিমালা তৈরি করা হয়েছে। সেগুলো মেনে আপনি যদি তাদের ক্রাইটেরিয়া পূরণ করতে পারেন তাহলেই ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামে অংশগ্রহণ করতে পারবেন। আর একবার আপনি ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামে যুক্ত হয়ে গেলে এখান থেকে আপনি নিয়মিত অর্থ উপার্জন করতে সক্ষম হবেন।

আরো পড়ুনঃ ফেসবুকে নিজেকে জনপ্রিয় করার উপায় এবং সুন্দরি মেয়েদের সাথে বন্ধুত্ব

ফেসবুক বোনাস program এ যুক্ত হওয়ার জন্য অবশ্যই আপনাকে শুরুর দিকে বেশ পরিশ্রম করতে হবে তাহলে আপনি সফল হবেন। তাহলে এখন নিশ্চয়ই আপনার ফেসবুক বোনাস program নিয়ে আর কোন ধরনের প্রশ্ন না থাকারই কথা। এরপরেও যদি আপনার ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রাম নিয়ে কোন ধরনের প্রশ্ন থেকে থাকে তাহলে অবশ্যই আমাকে সরাসরি হোয়াটসঅ্যাপে নক দিবেন। আমি আপনাকে সঠিকভাবে বুঝিয়ে দেব।

ফেইসবুক প্রোগ্রাম বোনাস

বর্তমানে ফেসবুক নতুন একটি নিয়ম চালু করেছে যা ফেইসবুক প্রোগ্রাম বোনাস। এই ফেইসবুক প্রোগ্রাম বোনাস এর মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই ফেসবুক থেকে অর্থ উপার্জন করতে সক্ষম হবেন। এখানে আপনি নিয়মিত ফেসবুকের ভিডিও আপলোডিং এবং লাইভ স্ট্রিমিং করার মাধ্যমে ফেইসবুক প্রোগ্রাম বোনাস সিস্টেমটি আনলক করতে পারবেন এবং এখানে আবেদন করে তারপর এখান থেকে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। তাহলে আশা করি বিষয়টি এখন বুঝতে পেরেছেন।

ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামের যোগ্যতা

এখন আমি বলব ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামের যোগ্যতা বা facebook bonus program join সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য। আপনি কীভাবে Facebook রিলস বোনাস প্রোগ্রামের জন্য আবেদন করতে পারেন এবং ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামের যোগ্যতা কি কি লাগবে সেগুলো আমি নিচে একে একে বিস্তারিত ভাবে তুলে ধরব। তাই অবশ্যই এই লেখাটি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। অর্থাৎ এখন আমি আপনাকে বলবো facebook bonus program apply ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামের যোগ্যতা এবং নিয়ম নীতি কি এখানে আবেদন করতে হলে। দেখে নিন তাহলে ভালোভাবেঃ

  • আপনাকে অবশ্যই ভারত অথবা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক হতে হবে।
  • আপনার বয়স কমপক্ষে ১৮ বছর এর বেশি হতে হবে।
  • আপনাকে অবশ্যই তুরাস প্রোগ্রামের মান পূরণ করতে হবে।
  • আপনাকে অবশ্যই পাস করতে হবে বোনাস পাওয়ার যোগ্যতাটি।
  • Facebook এর ফেসবুকের সকল নীতিমালা গুলি মেনে চলতে হবে৷
  • অবশ্যই ৩০ দিনের বেশি পুরানো অ্যাকাউন্ট থেকে আবেদন করতে হবে।
  • আপনাকে অবশ্যই ৩০ দিনের মধ্যে কমপক্ষে পাঁচটি রিল তৈরি করতে হবে।
  • আপনাকে অবশ্যই ৩০ দিনে মিনিমাম ১০০K রিল ভিউ পেতে হবে।
  • আপনাকে এই সময়ে প্রফেশনাল মোডে একটি পেজ বা আইডি থেকে আবেদন করতে হবে।

উপরোক্ত এ কয়েকটি শর্ত মেনে আপনি ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামের যোগ্যতা অর্জন করতে পারেন facebook bonus eligibility হতে পারেন। আপনি যদি ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামের যোগ্যতা অর্জন করে যান তাহলে রিলস প্লে বোনাস প্রোগ্রামে যোগদানের জন্য আপনি একটি তাদের কাছে থেকে আমন্ত্রণ পাবেন। অর্থাৎ তারা এসএমএসের মাধ্যমে কিংবা মেসেজের মাধ্যমে আপনাকে জানিয়ে দিবে যে আপনি তাদের যোগ্যতা পূরণ করতে পেরেছেন। আর এভাবেই আপনি ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামের যোগ্যতা অর্জন করে অনলাইন থেকে ইনকাম শুরু করতে পারেন।

www.facebook.com ক্রিয়েটর প্রোগ্রাম বোনাস

তাহলে চলুন এখন আমরা www.facebook.com ক্রিয়েটর প্রোগ্রাম বোনাস সম্পর্কে খুঁটিনাটি সকল তথ্য জেনে নিই। আমরা জানি যে বর্তমানে ফেসবুকে প্রফেশনাল মনে www.facebook.com ক্রিয়েটর প্রোগ্রাম বোনাস চালু করা হয়েছে। আর এটি বর্তমানে প্রায় সকল দেশেই ইলিজিবল রয়েছে। তবে এই www.facebook.com ক্রিয়েটর প্রোগ্রাম বোনাস ক্রাইটেরিয়া গুলো বেশ জটিল রয়েছে কেননা থিয়েটার প্রোগ্রাম বোনাস পেতে হলে অবশ্যই আপনার ৫ হাজার ফলোয়ার এবং ৬০কে ওয়াচ টাইম থাকতে হবে।

এছাড়াও আরেকটি রয়েছে ১০ হাজার ফলোয়ার এবং ৬০০কে ওয়াচ টাইম থাকতে হবে তাও মাত্র ছয় মাসের মধ্যে। তবে এই ক্রাইটেরিয়া পূরণ করা প্রফেশনাল ব্যক্তিদের কাছে সামান্য ব্যাপার হলেও সাধারণ সকল ব্যক্তিদের কাছে মোটেও সামান্য বিষয় নয়। তবে এই www.facebook.com ক্রিয়েটর প্রোগ্রাম বোনাস টি চালু করতে হলে অবশ্য আপনার একটি ভেরিফাইড ফেসবুক অ্যাকাউন্ট প্রয়োজন আর তার জন্য অবশ্যই আপনার ভোটার আইডি কার্ড লাগবে এবং আপনার বয়স ১৮ বছর হতে হবে।

আরো পড়ুনঃ উইন্ডোজ ১১ এর সেরা কিছু গোপন ফিচারগুলো জেনে নিন

আপনি যদি ১৮ বছরের নিচে হয়ে থাকেন আর আমার এই আর্টিকেলটি পড়ে থাকেন। তাহলে আপনার জন্য আমার সেরা পরামর্শ হলো আপনি আপনার বড় ভাই অথবা মাতা পিতার ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে ফেসবুক একাউন্ট ভেরিফাই করে নিতে পারেন। তাহলে নিশ্চয়ই এখন আমি আপনাকে বুঝিয়ে দিয়েছি www.facebook.com ক্রিয়েটর প্রোগ্রাম বোনাস সম্পর্কে।

Facebook Reels বোনাস প্রোগ্রাম প্রযোজ্য

এখন আমি বলব Facebook Reels বোনাস প্রোগ্রাম প্রযোজ্য বা যোগ্যতা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য। আপনি কীভাবে Facebook Reels বোনাস প্রোগ্রাম এ আবেদন করতে পারেন এবং Facebook Reels বোনাস প্রোগ্রাম প্রযোজ্য কি কি লাগবে সেগুলো আমি নিচে একে একে বিস্তারিত ভাবে তুলে ধরব। তাই অবশ্যই এই লেখাটি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। অর্থাৎ এখন আমি আপনাকে বলবো Facebook Reels বোনাস প্রোগ্রাম প্রযোজ্য এবং নিয়ম নীতি কি এখানে আবেদন করতে হলে। দেখে নিন তাহলে এখন ভালোভাবে facebook reels bonus apply See List:

  • Facebook Reels বোনাস প্রোগ্রাম প্রযোজ্য
  • আপনাকে অবশ্যই ভারত অথবা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক হতে হবে।
  • আপনার বয়স কমপক্ষে ১৮ বছর এর বেশি হতে হবে।
  • আপনাকে অবশ্যই তুরাস প্রোগ্রামের মান পূরণ করতে হবে।
  • আপনাকে অবশ্যই পাস করতে হবে বোনাস পাওয়ার যোগ্যতাটি।
  • Facebook এর ফেসবুকের সকল নীতিমালা গুলি মেনে চলতে হবে৷
  • অবশ্যই ৩০ দিনের বেশি পুরানো অ্যাকাউন্ট থেকে আবেদন করতে হবে।
  • আপনাকে অবশ্যই ৩০ দিনের মধ্যে কমপক্ষে পাঁচটি রিল তৈরি করতে হবে।
  • আপনাকে অবশ্যই ৩০ দিনে মিনিমাম ১০০K রিল ভিউ পেতে হবে।
  • আপনাকে এই সময়ে প্রফেশনাল মোডে একটি পেজ বা আইডি থেকে আবেদন করতে হবে।

উপরের এ কয়েকটি শর্ত মেনে আপনি Facebook Reels বোনাস প্রোগ্রাম প্রযোজ্য অর্জন করতে পারেন। আপনি যদি Facebook Reels বোনাস প্রোগ্রাম প্রযোজ্য যোগ্যতা অর্জন করে পারেন। তাহলে Facebook Reels বোনাস প্রোগ্রাম প্রযোজ্য প্রোগ্রামে যোগদানের জন্য আপনি একটি তাদের কাছে থেকে আমন্ত্রণ পাবেন।

অর্থাৎ তারা এসএমএসের মাধ্যমে কিংবা মেসেজের মাধ্যমে আপনাকে জানিয়ে দিবে যে আপনি তাদের যোগ্যতা পূরণ করতে পেরেছেন। আর এভাবেই আপনি Facebook Reels বোনাস প্রোগ্রাম প্রযোজ্য যোগ্যতা অর্জন করে অনলাইন থেকে ইনকাম শুরু করতে পারেন।

ফেসবুক রিলস বোনাস প্রোগ্রাম

আপনি যদি ছবি তুলতে খুব বেশি পছন্দ করেন কিংবা ভিডিও বানাতে আপনার পছন্দ হয়ে থাকে খুব বেশি। তাহলে ফেসবুক রিলস বোনাস প্রোগ্রাম এ যোগ দিতে পারেন খুব সহজে। ফেসবুক প্রোগ্রাম হচ্ছে সে প্লাটফর্ম যেখানে আপনি ভিডিও বানিয়ে ছবি ভিডিও বানিয়ে আপলোড করে। এখান থেকে ভালোমতো একটি বোনাস পেতে পারেন অর্থাৎ অর্থ ইনকাম করতে পারবেন।

তবে ফেসবুক রিলস বোনাস program থেকে অর্থ উপার্জন করার জন্য বেশ কিছু ক্রাইটেরিয়া পূরণ করতে হবে আপনাকে সর্বপ্রথম। ফেসবুক রিলস বোনাস প্রোগ্রাম হল ছোট ছোট ভিডিও লাইভ স্ট্রিমিং বানিয়ে নিয়মিত প্রতিদিন ফেসবুকে আপলোড করা।

ফেসবুক বোনাস কিভাবে আয় করব – ফেসবুকে কত ভিউ কত টাকা

অনেকে জানতে চেয়ে থাকেন ফেসবুক বোনাস কিভাবে আয় করব এবং ফেসবুকে কত ভিউ কত টাকা আয় করব আয় করব। ফেসবুক বোনাস program কিভাবে আয় করবো বিষয়টি জানতে হলে অবশ্যই প্রথমে আপনাকে জানতে হবে। ফেসবুক বোনাস program কিভাবে আপনি প্রথমে শুরু করতে পারেন। ফেসবুক মুনাস প্রোগ্রাম শুরু করার জন্য প্রথমত আপনাকে নিয়মিত ফেসবুকে ভিডিও ছেড়ে যেতে হবে। অর্থাৎ ভালো ভালো ভিডিও আপলোড দিতে হবে যাতে করে মানুষরা অর্থাৎ দর্শকরা ভিডিও দেখে আকর্ষিত হয়।

এবং আপনার ভিডিও নিয়মিত দেখার জন্য আপনার ফেসবুক আইডিতে নিয়ম। এতে করে আপনার গ্রহণযোগ্যতা বাড়বে ফেসবুকের কাছে এবং ফেসবুক কর্তৃপক্ষ আপনাকে আলাদাভাবে দেখবে। যখন আপনি নিয়মিত ভিডিও ছাড়বেন আর দর্শক আপনার বেড়ে যাবে তখন ফেসবুকেই নিয়মিত আপনার ভিডিও বুস্ট করে দিবে দর্শকদের কাছে। ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামের বেশ কয়েকটি স্টেপ রয়েছে।

আরো পড়ুনঃ ভালো মানের কম্পিউটারের দাম কত ডেক্সটপ কম্পিউটারের দাম

যেমন একটি রয়েছে ৫ হাজার ফলোয়ার এবং ৬০কে মিনিট ভিডিও ভিউ আরেকটি রয়েছে ১০ হাজার ফলোয়ার এবং ৬০০ কে মিনিট ভিডিও ভিউ। যা facebook কর্তৃপক্ষের নীতিমালার আওতাভুক্ত। আর এ সকল নীতিমালা পূরণ করতে গেলে অবশ্যই আপনার ফেসবুক পেজ কিংবা আইডিতে অসংখ্য ফ্যান ফলোয়ার প্রয়োজন। যখন আপনার অসংখ্য ফ্যাট ফলোয়ার হয়ে যাবে।

তখন আপনার এই সকল স্টেপ গুলো খুব সহজেই পূরণ হয়ে যাবে আর আপনি ফেসবুক বোনাস program থেকে আয় করতে শুরু করবেন। আশা করি এখন আমি আপনাকে ফেসবুক বোনাস কিভাবে আয় করব বিষয়টি বোঝাতে পেরেছি।

নির্মাতাদের জন্য বোনাস প্রোগ্রাম মেটা

নির্মাতাদের জন্য বোনাস প্রোগ্রাম এটা আসলে একটি দুর্দান্ত বিষয়। শুরুর দিকে যখন ২০০৮ সালে ফেসবুক চালু হয় তখন শুধুমাত্র মানুষটা মেসেজিং করতে পারত এবং পোস্ট লেখালেখি করতে পারত ধীরে ধীরে এর কিছুটা উন্নতি হয়েছে। তবে সবচেয়ে বেশি ফেসবুকের উন্নতি হয়েছে ২০২৩ সালে। কেননা ২০২৩ সাল থেকে নির্মাতার জন্য বোনাস প্রোগ্রাম মেটাতে চালু করেছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

তাই ২৩ সালের পূর্বে বিভিন্ন ধরনের নির্মাতারা ফেসবুকে ভিডিও আপলোড করে কোন ধরনের অর্থ উপার্জন করতে পারতেন না। তাদের শুধু সময় ব্যয় হতো এবং নিজের পকেট থেকেই তাই পূর্বে বিভিন্ন নির্মাতাদের জনপ্রিয়তা আকাশচুম্বী থাকলেও তাদের আয়ের পথ ছিল একদমই শূন্য।

আর এই আয়ের পথকে প্রশস্ত করতে নির্মাতাদের জন্য বোনাস প্রোগ্রাম এটা চালু করেছে ফেসবুক কর্তৃপ। এতে করে এখন ফেসবুকেও টিক টক ইউটিউব এর মত অসংখ্য নির্মাতার আবির্ভাব ঘটেছে। এবং অনেকেই এখানে এসে সফল হচ্ছে না আবার অনেকে ব্যর্থতা নিয়ে ফিরে যাচ্ছেন।

তবে যাই হোক ফেসবুক কর্তৃপক্ষের নির্মাতাদের জন্য বোনাস প্রোগ্রাম এটা চালু করা খুবই একটি দুর্দান্ত ব্যাপার। এজন্য আমি ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানাই। তিনি নির্মাতাদের কথা ভেবে কাজ করেছেন।

লেখকের শেষ কথা

ফেসবুক আগে মানুষ ফেরি ফেরি চালালেও এখন ফেসবুক থেকেই অর্থ উপার্জন করা যাচ্ছে বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার এবং আমাদের ব্যক্তিগত জীবনে খুবই উপকারী বটে। আগে মানুষ ফেসবুকে অসংখ্য সময় ব্যয় করলেও একটা টাকাও ইনকাম করতে পারত না। কিন্তু বর্তমানে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন ধরনের বোনাস প্রোগ্রাম চালু করার পর থেকে অসংখ্য মানুষ ফেসবুক থেকে অর্থ উপার্জন করতে শুরু করে দেয়। এ বিষয়টি খুব দারুণ দেখিয়েছে ফেসবুক নির্মাতাদের ক্ষেত্রে অথবা ফেসবুক ক্রিয়েটরদের কাছে ফেসবুক মেটা কোম্পানি।

আপনি যদি আমার এই আর্টিকেলটি সম্পন্ন পড়ে থাকেন। তাহলে অবশ্যই ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন ফেসবুক বোনাস program এর যোগ্যতা কি কি লাগে। এবং ফেসবুক বোনাস প্রোগ্রামে আপনি কিভাবে যোগদান করবেন ইত্যাদি ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আমি সঠিক এবং সুন্দর তথ্য তুলে ধরেছি এই আর্টিকেলটিতে। আমার এই আর্টিকেলটি পরে যদি আপনার ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করবেন।

Assalamu Alaikum! Hello world, I am Md. Hafijul Islam (mhihafijul). I am a Bangladeshi SEO expert. And I have been writing high quality Bengali content for a long time. I can write very nice SEO friendly articles. Along with that we do onpage seo, offpage seo and technical seo in proper guidelines. For which every article I write ranks on Google's fast page.

Sharing Is Caring:

Leave a Comment

error: Content is protected !!